তৃণমূল – বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত পাথরা, জখম ৮, ভাঙচুর, লুঠ, উত্তেজনা

0
935

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ তৃণমুল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল সদর ব্লকের পাথরা এলাকা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়। দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত হয়েছেন ৮ জন। আহতদের মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। অভিযোগ বেশ কয়েকটি বাড়ি ভাঙচুর হয়েছে। হয়েছে লুঠপাটও। ঘটনাস্থলে মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। এলাকা রয়েছে থমথমে। এই ঘটনায় একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দুই পক্ষেরই। এদিন সন্ধ্যায় তৃণমুলের কর্মীরা মিছিল শেষে পাথরাতে বাড়ি ফেরার পথে বিজেপি সমর্থকদের সঙ্গে বচসার সৃষ্টি হয়। দুই পক্ষই তর্ক বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে। বচসা থেকে সংঘর্ষ বেধে যায় দুপক্ষের মধ্যে। বাঁশ ও লাঠির আঘাতে দুপক্ষের ৮ জন জখম হয়েছে। এলাকায় রয়েছে চাপা উত্তেজনা। এই ঘটনায় বিজেপির বিরুদ্ধে পরিকল্পিত হামলার অভিযোগ করেছেন তৃণমুলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতি। তিনি বলেন, পাথ্রা এলাকায় তৃণমুলের একটি মিছিল ছিল। মিছিল শেষে কর্মীরা যখন বাড়ি ফিরছিল তখন বিজেপির লোকজন আমাদের কর্মীদের উপর পরিকল্পিত হামলা চালায়। অতর্কিত হামলায় আমাদের কর্মীরা প্রতিরোধ পর্যন্ত করতে পারেনি। তৃণমূলের উন্নয়নের কাছে পেরে না উঠে বিজেপি বিভিন্ন এলাকায় এভাবে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। পুরো বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হচ্ছে।

এনিয়ে পালটা অভিযোগ করেছেন বিজেপির জেলা সভাপতি শমিত দাস। তিনি বলেন, ঐ এলাকায় বিজেপির শক্তি কম। তৃণমূলের উপর হামলা চালানোর শক্তি নেই। তৃণমূলই মিছিল সেরে ফেরার পথে আমাদের কর্মী সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালায়। বাড়িঘর ভাঙচূর করে। লুঠপাটও চালিয়েছে তৃণমুলের দুশকৃতীরা। ঐ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা থাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে বলে কোতোয়ালি থানার আই সি বিভাস মণ্ডল জানান। তিনি বলেন পরিস্থিতির উপর কড়া নজর রাখা হয়েছে। ওখানে যথেষ্ট পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।