উচ্চমাধ্যমিকের টেস্টে ফেল, স্কুলের ভিতরেই আত্মঘাতী ছাত্রী, বিক্ষোভে আভিভাবকরা

0
8432

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ উচ্চমাধ্যমিকের টেস্টে অকৃতকার্য হওয়ায় বিদ্যালয়ের তিনতলার এক ঘরে গিয়ে আত্মঘাতী হল এক ছাত্রী । ডেবরা থানায় লোয়াদা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ঘটনা। মৃত ছাত্রীর নাম হালিমা খাতুন (১৭)। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। পুলিশ স্কুলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। মৃত ছাত্রীর বাড়ি ডেবরার নরহরিপুর গ্রামে। ঘটনার বিবরণে জানা গিয়েছে বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ে উচ্চমাধ্যমিকের টেস্টের ফলাফল বের হয়। ফলাফলে দেখা যায় হালিমা খাতুন অকৃতকার্য হয়েছে। মোট ৪৮ জনের মধ্য ৮ জন অকৃতকার্য হয়েছে। এই ৮ জনের মধ্যে হালিমা খাতুনও রয়েছে। প্রত্যেকেই ৫টি বিষয়ে অত্যন্ত কম নম্বর পাওয়ায় তাদের নাম বের করা হয়নি। বিদ্যালয়ে থেকে সেই সব ছাত্রীদের বলা হয় বাড়ি থেকে অভিভাবকদের ডেকে আনলে হবে তবেই উচ্চমাধ্যমিকের জন্য ফর্ম ফিলআপ করতে দেওয়া হবে। এদিকে ৩০০ নম্বর জেনে বাবা মা বকাবকি করতে পারেন সেই ভয়ে বিদ্যালয়ের তিনতলার একটি ঘরে নিজের ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয় হালিমা। ঘটোনার খবর পেয়েই হালিমার বাবা হামিদুল খান  বিদ্যালয়ে আসেন। আসেন অন্যান্য অভিভাবকরাও । বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকাকে ঘিরে অভিভাবকরা বিক্ষোভও দেখান। মৃতদের পরিবার ঘটনার তদন্ত দাবী করেছে। এদিকে বিদ্যালয়ের  প্রধান শিক্ষিকা রমা ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, ৮ জন ছাত্রী ৫টি বিষয়েই অত্যন্ত কম নম্বর পেয়েছে। তাই তাদের নাম বের করা হয়নি, কিন্তু হালিমা এমন দুর্ঘটনার ঘটিয়ে ফেলবে আমরা বুঝতেও পারিনি। ঘটনায় তীব্র চঞ্চল্য ছড়িয়েছে ডেবরা এলাকা জুড়ে।