বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙচুরের প্রতিবাদে শিক্ষক সংগঠনের সভা শহরে

0
216

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ কলকাতার বিদ্যাসাগর কলেজে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙে ফেলার প্রতিবাদে রবিবার মাধ্যমিক শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা কমিটির উদ্যোগে শহরের এল আই সি মোড়ে বিদ্যাসাগর মূর্তির পাদদেশে একটি প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়। রবিবার এই সভায় সভাপতিত্ব করেন সমিতির মেদিনীপুর সদর মহকুমা কমিটির সভাপতি জয়দ্বীপ ফৌজদার। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন  সমিতির প্রাক্তন জেলা সম্পাদক তপন দাস, জেলা সম্পাদক উত্তম প্রধান, সহ সম্পাদক অক্ষয় খান, কাকলি ভূঞ্যা, সুশান্ত সাহু সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। বক্তারা তাঁদের বক্তব্যে বলেন বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙে ফেলাটা কোনও বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলগুলো যেকোনও ভাবে ক্ষমতায় টিকে থাকার লক্ষ্যে অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে আন্দোলন যাতে গড়ে না ওঠে তারজন্য ছাত্র-যুবকদের নৈতিক মেরুদণ্ড ভেঞে ফেলার লক্ষ্যে একদিকে যেমন সমাজে মদ জুয়া সাট্টা অশ্লীলতার ঢালাও প্রসার ঘটাচ্ছে অন্যদিকে সমাজে যুক্তিবাদী বিজ্ঞানসম্মত মননশীল মানসিকতা মেরে ফেলে অন্ধ কুসংস্কারাচ্ছন্ন মানসিকতার প্রসার ঘটাতে চায়। তাই মানবতাবাদী মনীষীদের আদর্শচর্চা ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলগুলির কাছে আতঙ্ক। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখেই মানবতাবাদী মনীষীদের চিন্তাধারর উপর আক্রমণ। বক্তব্যে আরও বলেন ইতিপূর্বে তারা লেলিনের মূর্তি ভেঞেছে, কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের মূর্তি ভেঙেছে, আসামে সিলেবাস থেকে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাহিত্য বাদ দিয়েছে, এমনকী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মজয়ন্তী পালনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে যথার্থ শিক্ষায় শিক্ষিত করে যথার্থ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হলে বিদ্যাসাগর-রবীন্দ্রনাথ সহ মানবতাবাদী মনীষীদের জীবনসংগ্রাম ও আদর্শ চর্চা অত্যন্ত জরুরি। সমিতির পক্ষ থেকে আমরা ধারাবাহিকভাবে সেই প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।