সদর ব্লকের দেলুয়ায় গাছ কেটে জঙ্গল সাফ, ভ্রুক্ষেপ নেই কারোরই

0
478

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ সবে মাত্র গাছগুলি একটি একটু করে বড়ো হচ্ছিল, পরিণত, হওয়ার আগেই চুরি করে গাছ কেটে সাফ করে দিচ্ছে আস্ত একটি দল। মেদিনীপুর সদর ব্লকের দেলুয়া থেকে মুড়াকাটা পর্যন্ত যাওয়ার রাস্তার পাশের ইউক্যালিপ্টাসের জঙ্গলটি দেখে কয়েকদিন ধরের গাছ কেটে চুরি করছে স্থানীয় কয়েকজন গ্রামবাসী। ভোর বেলা থেকে গাছ কাটা শুরু হয়। সূর্যের আলো ফোটার আগেই কাটা গাছ নিয়ে ঘরে ঢুকে যাচ্ছে সকালে। প্রতিদিন ৩০-৪০জন মহিলা নির্বিচারে গাছ কেটে যাচ্ছে। দেলুয়া গ্রামের পাশেই নতুন একটি পাড়া গড়ে উঠেছে। বেশিরভাগ লোক এলাকাটিকে জামাই পাড়া হিসেবেই জানেন। সেই পাড়ার বেশ কিছু মহিলা নিয়মিত গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি কিংবা নেতার সব জেনে শুনেও চুপ করে রয়েছে। স্থানীয় যুবক সেক সিরাজুল বললেন জঙ্গলটা কত গভীর ছিল, আর এখন পুরো ফাঁকা, বেশ কয়েকবার বারণ করেছি, কিন্তু কেউ শোনেইনা। দেলুয়া গ্রামের কয়েকজন যুবক বললেন বনদফতর এসে একবার সকলকে নিয়ে বৈঠক করে, জঙ্গল কাটা যাবে না বলে লিখিত সিদ্ধান্তও হয়, তারপরেও কয়েকদিন চুপ ছিল, আবার ইদানিং শুরু হয়েছে। বনদফতরের এক আধিকারিক বললেন, ঐ এলাকায় অভিযান চালিয়ে দু-গাড়ি কাঠ উদ্ধার হয়েছে, কিন্তু আবার শুরু হয়েছে শুনলাম, অবশ্যই ব্যবস্থা নেব। গ্রামেরই কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী বললেন, ঐ এলাকায় বাড়ির পুরুষরা কোন কাজকর্ম করে না, বাড়ির মহিলারা গাছ কেটেই সংসার চালান।