রাজ্য সরকার স্বনির্ভর করার উদ্যোগ নিয়েছে, বললেন মন্ত্রী

0
135
পত্রিকা প্রতিনিধিঃ বড় বা ভারি শিল্পে এ রাজ্যে বিনিয়োগ আসছেই না, বরং বহু শিল্প কলকারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এই অবস্থায় মানুষের আস্থা অর্জন করতে হস্ত বা ক্ষুদ্র শিল্পগুলির উপরেই জোর দিয়েছে রাজ্য সরকার। বিভিন্ন স্ব-সহায়ক গোষ্ঠীর মাধ্যমে হস্তশিল্পগুলিকে জাগিয়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। হস্তশিল্পের প্রসারের লক্ষ্যে বেশ কয়েক বছর ধরে সবলা মেলা করে আসছে রাজ্য সরকার। বিভিন্ন জেলাতেই এই মেলা চলছে। বৃহস্পতিবার পশ্চিম মেদিনীপুর সবলা মেলা শুরু হল শহরের বিদ্যাসাগর হলের মাঠে। জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পট, মাদুর, বাঁশের তৈরি জিনিস, গয়না, জামাকাপড়, বড়ি, আচার প্রভৃতির পসরা নিয়ে এসেছেন বিক্রেতারা। মেলার উদ্বোধন করেছেন মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র। প্রায় ৭০ টি স্টল ছাড়াও সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের জন্যও রয়েছে স্টল। মেলা উদ্বোধন করে মন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে বলেন, কয়েক বছর আগেও এই সব হস্তশিল্পীরা অবহেলিত ছিলেন, রাজ্য সরকার এই শিল্পীদের বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় এনে তাঁদের স্বনির্ভর করার উদ্যোগ নিয়েছে। তবে মেলায় যাঁরা পসরা সাজিয়ে বসেছেন তাঁরাই জানান এই সব মেলা করলেই হবে না, শিল্পীদের পসরা বিক্রির জন্য স্থায়ী বাজার প্রয়োজন। যেমন মাদুরের বাজার, পটের বাজার, বাঁশের পসরার বাজার, তাঁতের বস্ত্রের বাজার। তাহলে মানুষ প্রয়োজন মতো ঐ বাজারে গিয়ে কেনাকাটা করতেও পারবেন, এবং সারা বছর ধরে শিল্পীদের বিক্রিও হবে। তারা এও জানান এই সব মেলায় তাদের খুব একটা লাভ হয় না, স্টল ভাড়া, খাওয়াদাওয়ার খরচ নিয়ে বিক্রি করে কিছুই থাকে না প্রায়, এখানে প্রচারটা হয়, লোকে চেনে জানে এটাই হয়। সেজন্য স্থায়ীবাজার খুবই প্রয়োজন। প্রথম দিন মেলায় ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। মেলা কয়েক দিন ধরেই চলছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সভাধিপতি উত্তরা সিংহ, অতিরিক্ত জেলাশাসক অরিন্দম নিয়োগী, জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক গিরীশ চন্দ্র বেরা প্রমুখ।