সাহিত্য অয়াকাডেমি সম্মান পাচ্ছেন বিরল ধারার কথাকার সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

0
123

শিশির চক্রবর্তীঃ- সাহিত্য ল্যাকাডেমি পুরস্কার পাচ্ছেন বিশিষ্ট লেখক সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়। ২০১৬ তে প্রকাশিত ‘শ্রীকৃষ্ণের শেষ কটা দিন’ উপন্যাসের জন্য এবছর এই মহার্য সম্মান দেওয়া হচ্ছে প্রখ্যাত এই সাহিত্য স্রষ্টাকে। বুধবার অ্যাকাডেমির পক্ষ থেকে এই সম্মানের কথা জানানো হয়। আগামী জানুয়ারি মাসে লেখকের হাতে এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে।

এই সম্মানপ্রাপ্তি বিষয়ে লেখকের প্রতিক্রিয়া “আমি খুশি”। অ্যাকাডেমি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ আমাদকে এই সম্মানপ্রাপ্তির জন্য নির্বাচিত করায়। আমি কৃতজ্ঞ আমার সমস্ত পাঠকবর্গের কাছে, যাঁরা আমাকে লেখক করেছেন, আর ধন্যবাদ প্রকাশনী সংস্থাকে, যারা আমার বইটি প্রকাশ করেছেন। ” অন্যান্য প্রকাশকদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন তিনি।

সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় বিগত কয়েক দশক ধরে অজস্ত্র গল্প উপন্যাস সৃষ্টি করে চলেছেন। হাস্যরস মিশ্রিত তাঁর বিচিত্র স্বাদের লেখাগুলি লক্ষ লক্ষ পাঠকদের কাছে সমাদর পেয়েছে। লেখা পড়ে তৃপ্ত সকলেই। সমাজের বিভিন্ন স্তরে যেসব অসংলগ্নতা, ভণ্ডামি, কৃত্রিমতা চোখে পড়েছে শানিত কলমে হাস্যরসের ছলে তার বিরুদ্ধে চাবুক হেনেছেন তিনি। সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় সেই বিউরল ধারার লেখক যেনি রোমান্টিকতার ধার না ঘেঁষে বাস্তবতার মাটিতে একেবারে সাধারণ সব বিষয়কে তাঁর সাধারণ কথ্যভাষার মোড়কে সমস্ত রচনায় ফুটিয়ে তুলেছেন অনায়াসে। তার লেখা পড়তে গিয়ে পাঠক কখনও নিজের মনেই হেসে ওঠেন, আবার কখনও রচনার গভীরতায় বিষ্ময় বিমুগ্ধ হয়ে ওঠেন। দেশ, সাপ্তাহিক বর্তমান সহ বহুপত্র-পত্রিকায় দীর্ঘ কয়েক দশক যাবৎ তাঁর অজস্ত্র লেখা প্রকাশিত হয়েছে। আজও তার ব্যাতিক্রম ঘটেনি।

সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়ের বাগ্মিতা, পান্ডিত্য, দেশ বিদেশের সাহিত্য সম্বন্ধে জ্ঞাণ, প্রজ্ঞা বিষ্ময়কর। অসম্ভব স্বভাব-বিনয়ী এই মানুষটির সাহচর্য যাঁরাই পেয়েছেন তাঁরাই মুগ্ধ হয়েছেন। শ্রীরামকৃষ্ণ-মা সারদা স্বামী বিবেকানন্দের উপর তাঁর অজস্র রচনাবলী সম্পদ। জীবনে পেয়েছেন অনেক সাহিত্য সম্মান। বিপ্লবী সব্যসাচী পত্রিকার সঙ্গেও তাঁর ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বিদ্যমান। এমন একজন সাহিত্য স্রষ্ঠার সাহিত্য অ্যাকাডেমি সম্মান প্রাপ্তিতে খুশি গোটা বিপ্লবী সব্যসাচী পরিবার।