দু-বছর ধরে প্রশাসনের দোরে দোরে ঘোরাই সার, পাতকুঁয়োর জলই পান করতে হচ্ছে স্কুল পড়ুয়াদের

0
1421

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ পশ্চিম মেদিনীপুরের জঙ্গল মহল ভুক্ত গোয়ালতোড় । বর্তমান সরকার জঙ্গল মহলের ছাত্রছাত্রীদের পঠন পাঠনের মানোন্নয়ন ঘটানোর জন্য তৈরী করেছেন নতুন নতুন স্কুল , কলেজ । জুনিয়ার স্কুল গুলি করা হয়েছে হাইস্কুলে । কিন্তু পরিকাঠামোর কি কিছু পরিবর্তন হয়েছে? গোয়ালতোড়ের বালিবাঁধে একই বিল্ডিং চলছে প্রাথমিক ও অঙ্গনওয়াড়ি স্কুল । ঝাঁ চকচকে বিল্ডিং । কিন্তু দীর্ঘ দু বছর ধরে নেই পানীয় জলের ব্যাবস্থা । স্কুলে সোলার পাম্প থাকলেই তা অকেজো হয়ে পড়ে রয়েছে দীর্ঘদিন ধরেই । স্কুরের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক গনেশ চন্দ্র মন্ডল অাবেদন জানিয়ে জানিয়ে অবসর গ্রহন করলেন তাই ব্যাবস্থা হয়নি পানীয় জলের সুরাহা । বর্তমান শিক্ষক শিক্ষিকারাও বিডিও থেকে শুরু করে স্কুল পরিদর্শক সকলের কাছেই আবেদন জানিয়েও লাভ হয়নি । অগত্যা স্কুলের মিড ডে মিলের রান্না বা বাচ্চাদের পানীয় জল ব্যাবহার করতে হচ্ছে পুরোনো এক পরিত্যাক্ত কুঁয়োর জল । স্কুলের শিক্ষক অতনু মন্ডল বা শিক্ষিকা কৃষ্ণা পাল জানান দীর্ঘ দিন আবেদন করা হলেও প্রশাসন আশ্বাস ছাড়া আর কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি । এর ফলে বিভিন্ন সময়েই ছাত্রছাত্রীরা জটিল পেটের রোগের সমস্যায় ভোগে । কিন্তু এছাড়া আমাদের আর কোনো উপায় নেই । তবে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি জলের ব্যাবস্থা না করা হলে বাচ্চা দের নিয়ে বিডিও অফিসে ধর্নায় বসবো । 

        অপর দিকে এই স্কুলেই ভোট গ্রহণ কেন্দ্র বালিবাঁধ বুথের । ভোট চলা কালীন যদি কোনো ভোটার ভোট চলা কালীন অসুস্থ হয়ে পড়লে মহা সমস্যা হবে । এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা অমল সরকাররা জানান দীর্ঘ দিন ধরেই পানীয় জলের সমস্যা আমরা চক্ষুষ লক্ষ করছি । বার বার আবেদনের পরেও প্রশাসন নিরব । এই স্কুলেই ভোট গ্রহণ কেন্দ্র । পানীয় জলের সমস্যা হলে ভোট পর্ব চালানোও মুসকিল ।