স্বামীদের অত্যাচার থেকে নিষ্কৃতি পেতে চোলাই মদের ঠেক ভাঙার জন্য ঐক্যবদ্ধ প্রমিলা বাহিনী

0
319

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ এলাকার নেশাগ্রস্ত মানুষের চোলাই মদ খাওয়া বন্ধ করার লক্ষ্যে বেআইনি চোলাই মদের ঠেক তোলার দাবিতে বিডিও এর দ্বারস্থ হলেন ঘাটালের কয়েকটি গ্রামের শতাধিক মহিলা। তাঁদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে গ্রামে চোলাই মদ তোইরি হয়। আর সেই মদ খেয়ে নেশায় বুঁদ হয়ে থাকেন বাড়ির স্বামীরা। বেশিরভাগ মানুষ নেশায় আসক্ত হয়ে বাড়িতে অশান্তি করে। গ্রামের মহিলারা তাঁদের স্বামীদের অত্যাচার সহ্য করতে পারছেন না। তাই চোলাই মদের ঠেক বন্ধ করার দাবিতে সাত দিন আগে ঘাটালের বিডিও অরিন্দম দাশগুপ্তের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন ঐ সব গৃহবধুরা। তাঁদের দাবি ছিল বিষয়টি খতিয়ে দেখার। যাতে চোলাই মদের অবৈধ ব্যবসা বন্ধ করা যায়। কিন্তু বিডিও আশ্বাস দেওয়ার পর সাত দিন কেটে গেলেও চোলাই ব্যবসা বন্ধ তো হয়ই নি, বরং এখনও রমরমিয়ে এলাকার মহিলারা ফের বিডিও অফিসে উপস্থিত হন। সুজাগঞ্জ, নকুল বাজার, নবগ্রাম, গনেশ বাজার সহ পাশাপাশি কয়েকটি গ্রামের মহিলারা বিডিও অফিসে হাজির হয়ে ফের চোলাই মদের ঠেক বন্ধ করার দাবি জানান। অবিলম্বে এব্যাপারে ব্যবস্থা না নেওয়া হলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দেন প্রমিলা বাহিনী। মহিলারা আরও জানান, দিনের পর দিন মদ খেয়ে বাড়িতে অশান্তি করে বাড়ির লোক। খাবার দাবার নষ্ট করে মারধর করে তাঁদের। চোলাই মদের জন্য গ্রামের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। তাই এর বিহিন না করা হলে তাঁরা জেলাশাওক অফিস ঘেরাও করার হুশিয়ারি দেন। বিডিও অরিন্দম দাশগুপ্ত বলেন সাত দিন আগে এলাকার মহিলাদের আর্জি মতো চোলাই মদের ঠেক ভাঙার জন্য আমি পুলিশ ও আবগারি দফতরকে অভিযান চালানোর জন্য জানিয়েছিলাম। সেই মতো কিছু জায়গায় অভিযান হয়েছে। বাকি জায়গাগুলোতেও অভিযান চালানোর জন্য পুলিশ ও আবগারি দফতরকে ফের জানিয়েছি।