সীমান্ত দিয়ে লোক ঢোকাচ্ছে বিজেপি, রুখতে হবে পুলিশকেঃ পার্থ

0
523

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ সীমান্ত দিয়ে বিজেপি লোক ঢোকাচ্ছে, পুলিশকে আরও সজাগ থাকতে হবে। দিলিপ ঘোষ আর বিজেপি এখন মমতা ভুত আর তৃণমূল ভুত দেখছে। জঙ্গল মহলের সীমান্ত এলাকায় নজরদারী বাড়াতে হবে, স্মমিলিত ভাবে রুখে দিতে হবে । পঞ্চায়েত নির্বাচনে  তৃণমূলের বিজয়ী প্রার্থীদের নিয়ে  ঝাড়গ্রামে জরুরী বৈঠকে  এসে তৃণমূলের মহাসচিব তথা শিক্ষা মন্ত্রি পার্থ চট্টোপাধ্যায় এই মন্তব্য করেন।
এদিন ঝাড়গ্রামের রেঞ্জ অফিসের সভা ঘরে বৈঠক ও আলোচনা সারেন তিনি। এদিনের আলোচনা সভায়  বেশ কিছু বিজেপি ও নির্দল জনপ্রতিনিধিরা ও নির্বাচিত সদস্যরা  তৃণমূলে যোগদান করেন। পার্থ বাবু ঝাড়গ্রাম জেলার ৮ ব্লকের পঞ্চায়েতে কে প্রধান আর উপ প্রধান হবেন তা ঠিক করে দেন।  আলোচনা সভায় কাপগাড়ী ৩ নম্বর অঞ্চলে আলোচনা না করে প্রধানের নাম দেওয়ার অভিযোগ তুলেন দলীয় নেতৃত্ব।  বৈঠকে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয় ওই সময় বেশ কিছু দলীয় কর্মীদের ধমক দেন পার্থ বাবু। পরে অন্যান্য নির্বাচিত প্রার্থীদের সমর্থন নিয়ে প্রধানের নাম ঘোষনা করেন৷ প্রত্যেকটা অঞ্চল ধরে ধরে কে কে জিতেছেন তাদেরকে সামনে ডেকে নিয়ে কে প্রধান হবে আর কে উপপ্রধান হবে তাদের নাম ঘোষনা করে বলেন ভালো করে কাজ করতে হবে৷ অভিঞ্জতা অর্জন করতে হবে৷মানুষের প্রয়োজনে কাজ করতে হবে। নিজের প্রয়োজনে নয়। মুখ্যমন্ত্রী কাজ পাঠাচ্ছে কিন্তু  অনেক সময় দেখা যাচ্ছে সেই কাজ ঠিক মতো মানুষের কাছে পৌচ্ছে না। এদিন সাংবাদিকদের পার্থ বাবু জানান, সীমান্ত দিয়ে বিজেপি লোক ঢোকাচ্ছে, পুলিশকে আরও সজাগ থাকতে হবে। দিলিপ ঘোষ আর বিজেপি এখন মমতা ভুত আর তৃণমূল ভুত দেখছে। জঙ্গল মহলের সীমান্ত এলাকায় নজরদারী বাড়াতে হবে, স্মমিলিত ভাবে রুখে দিতে হবে। ৯০ শতাংশ পঞ্চায়েত আমরা গঠন করব। সিপিএমের আমলে যারা অত্যাচারিত হইয়েছেন আমরা তাদেরও দেখব। ঝাড়গ্রামের ডাক্তার সেল আজ তৃণমূলে যোগ দিয়েছে। সমাজকে অর্থ আরও নানা প্রলোভন দেখাচ্ছে ওরা । কাউকে পুরি নিয়ে যাচ্ছে, ঝাড়খণ্ডে নিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে জঙ্গল মহল এলাকার সীমান্ত এলাকায় কোন অশান্তি হলে কঠোর হাতে দমন করতে হবে।