ঝাড়গ্রামের সভা থেকে বিজেপিকে কড়া আক্রমণ করলেন মমতা

0
117

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ ঝাড়গ্রামের প্রশাসনিক সভা থেকে নাম না করে বিজেপিকে আক্রমণ শানালেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে দিলেন উন্নয়নের বার্তা। বুধবার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “সবেমাত্র নতুন জেলা হয়েছে ঝাড়গ্রাম। তা সত্ত্বেও অনেক উন্নয়ন হয়েছে। নতুন জেলা অফিস তৈরি হয়েছে। আইটি আই ও তিনটি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতাল তৈরি করেছে সরকার । তিনটি কলেজে পড়াশোনা চালু হয়ে গিয়েছে। 

নাম না করে মমতা বলেন, “দিল্লীর উস্কানিতে পাহাড়ে গোলমাল হয়েছে, পাহাড় আগে শান্ত ছিল । তাদের উস্কানিতে পাহাড় , জঙ্গলমহল অশান্ত করা হচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় অশান্তি ছড়াচ্ছে গেরুয়া দল। কিছু লোক ষড়যন্ত্র ছাড়া কিছু করতে পারে না। অন্য রাজ্যে দলিতদের পিটিয়ে মারা হয়। একটা দল মানুষে মানুষে বিভেদ করছে, ভেদাভেদের চক্রান্তে পা দেবেন না। চক্রান্ত করে অশান্তি ছড়ানো যাবে না।” এরপরই দলীয় নেতাকর্মী ও প্রশাসনিক কর্তাদের কড়া বার্তা, কাজ ফেলে রাখা যাবে না। মানুষের সঙ্গে জনসংযোগ বাড়াতে হবে। বিজেপি শাসিত সব রাজ্যের মানুষ চরম বিপাকে। 

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “একটা সময়ে মাওবাদীদের ভয়ে এখানে কেউ আসত না। সেই ভয়ের পরিবেশ আর নেই। সরকার এখানে শান্তি ফিরিয়ে এনেছে। সবরকম সহযোগিতা করছে। ৭০ লক্ষ ছেলেমেয়ে সাইকেল । সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন ৯০ শতাংশ মানুষ। স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প চলছে। ৭০ লক্ষ ছেয়েমেয়েকে সাইকেল দেওয়া হয়েছে। অনেক কাজ হচ্ছে, আরও হবে। আরও পাঁচশো কোটি টাকা বরাদ্দ করবে সরকার। এটা গরিব মানুষের সরকার। আগে কেউ গরিবের কথা ভাবেনি। আদিবাসিদের উন্নয়নের কথাও বলেছেন মমতা। তাঁর ঘোষনা, আদিবাসীদের উন্নয়নে একাধিক পদক্ষে করেছে সরকার। দশম শ্রণি পর্যন্ত অলচিকিতে পড়াশোনা শুরু হয়েছে। এবার একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে শুরু হবে। ভবিষ্যতে স্নাতক পর্যন্ত পড়া যাবে। সাঁওতালি ভাষায় কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি হবে ।