লালগড়ের বাস দুর্ঘটনায় মৃতদের পরিবারে রোজগেরে না থাকলে চাকরি দেবে সরকারঃ পার্থ

0
84

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ  লালগড়ে বাস দুর্ঘটনায় মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গেলেন রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কেউ রোজগেরে না থাকলে মৃতের পরিবারের একজনকে চাকরির আশ্বাস দেন তিনি। সেইসঙ্গে নিহত ও আহতের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য করার কথাও বলেন। এছাড়া মৃতের পরিবারের ছেলেমেয়েদের শিক্ষার খরচ সরকার বহন করবে বলে জানান।
আজ সকালেই শালবনি চলে আসেন পার্থবাবু। সেখানে বুড়ামারা গ্রামের মৃত তিন বাসযাত্রীর বাড়ি যান। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। ছেলে-মেয়ের পড়াশোনার খরচ সরকার বহন করবে বলে জানান। এরপর চলে আসেন শালবনির বয়লার গ্রামে। বাস দুর্ঘটনায় মৃত আরও ৪ জন এই গ্রামের বাসিন্দা। মৃতের পরিবার পরিজনকে সরকারি সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দেন পার্থবাবু। শালবনি থেকে আহতদের দেখতে তিনি যান মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজে। তাঁদের সঙ্গে কথা বলে চিকিৎসাক্ষেত্রে সাহায্য ও সুযোগ-সুবিধা প্রদানের নির্দেশ দেন জেলা প্রশাসনকে। 
এরপর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। পার্থবাবু বলেন, “আমি হাসপাতালে এলাম দুর্ঘটনায় আহতদের দেখতে। এখানে প্রায় ৩০ জনের উপর ভরতি রয়েছেন। এক বৃদ্ধা মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন। তাঁরও চিকিৎসা চলছে। অনেকেই সুস্থ হয়ে উঠছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, চিন্তার কোনও কারণ নেই।” দুর্ঘটনার খবর পেয়ে মুখ্যমন্ত্রীও খবর নিয়েছেন বলে জানান পার্থবাবু। বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী দিল্লিতে ছিলেন। তিনি দুর্ঘটনার খবর পেয়েই আমাদের কাজে নেমে পড়ার নির্দেশ দেন। নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। আহতদের চিকিৎসার ভার সরকারকে বহন করতে বলেছেন। সেইসঙ্গে আজ সকালের মধ্যে মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার কথা বলেছেন। আজ সকালেই আমরা মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলাম। তাদের সাহায্যের কথা জানিয়েছি। পরিবারে কেউ রোজগেরে না থাকলে একজনকে চাকরি দেওয়া হবে। ছেলে-মেয়েদের শিক্ষার দায়িত্ব সরকারের। এছাড়া দুর্ঘটনায় মৃত ও আহতদের আর্থিক সাহায্য করা হবে।”