কঙ্কাবতীতে কংসাবতী নদীর চর থেকে উদ্ধার ৯টি হাত কামান

0
1540

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ মেদিনীপুর সদর ব্লকের কঙ্কাবতী গ্রাম পঞ্চায়েতের কঙ্কাবতী গ্রাম । সেই গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে চলেছে কাঁসাই নদী । ধু ধু করা বালি । সেই বালি চরে প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ বালি খোঁড়ে । আজ সেই বালি খুঁড়ে বালি তুলতে গিয়ে ছড়াল চাঞ্চল্য । বালির ভিতর থেকে উদ্ধার হল চারটি হাতকামান বা মর্টার । স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে প্রতিদিনের মতো আজও বালি তোলার কআআজ হচ্ছিল । সেই সময় বালি তুলতে গিয়েই দেখা যায় বালির ভিতর কিছু রয়েছে । খোঁড়া খুঁড়ি করতেই বেরিয়ে আসে চারটি হাত কামান । বালি শ্রমিক দের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়ায় । খবর যায় কতোয়ালি থানায় । কতোয়ালি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় । উদ্ধার করা হয় মর্টার গুলি । একই সঙ্গে আরো খনন কাজ করা হলেও আর মর্টার উদ্ধার হয়নি । স্থানীয় মানুষ জন সহ তৃণমূল নেতৃত্ব দাবী করেন ২০০৬ – ২০১১ সাল পর্যন্ত সিপিএম এই কঙ্কাবতী তে যে হার্মাদ ক্যাম্প করেছিল এলাকা তারাই ব্যাবহার করতো এই হায় কামান গুলি । পরবর্তী কালে রাজ্যে পালা বদলের পর সিপিএমের সেই দুষ্কৃতিরা এই গুলি কাঁসাই নদীর বালুচরে ফেলে পালায় । সেই গুলিই বালি তোলার সময় বেরিয়েছে । যদিও এই অভিযোগ সিপিএমের পক্ষ থেকে উড়িয়ে দিয়ে বলা হয়েছে , ” তৃণমূল আসলে নিজেদের দোষ ডাকতেই সিপিএমের উপর দোষ চাপাচ্ছে । সজ্জ্বনপোষন , আর্থিক কেলেঙ্কারি , দুর্নীতির দায়ে তৃণমূল এখন মানুষের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে । তাই পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে এলাকায় সন্ত্রাস করে ভোটে জেতার জন্যই এই ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র আগের থেকে মজুত করে বালুর চরে পুঁতে রেখেছে । ধরা পড়ার পর এখন সিপিএমের নামে মিথ্যা দোষারোপ করছে ।