আজও দুই মেদিনীপুর সহ দক্ষিণবঙ্গে ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা

0
269
সোমবার শহরে টানা বৃষ্টিতে জনজীবন বিপর্যস্ত

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ রবিবার থেকে বৃষ্টি শুরু হয়েছে গোটা দক্ষিনবঙ্গ জুড়ে। শনিবারও বৃষ্টি হয়েছিল তবে পরিমানে কম। আবহাওয়া দফতর সুত্রে খবর, আগামী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া প্রায় একই রকম থাকবে, পরিবর্তনের কোনও সম্ভাবনা নেই। বরং পরিস্থিতি আরও জটিল হবে বলে জানিয়ে দিল আবহাওয়া দফতর। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পাশাপাশি কোথাও কোথাও অতিরিক্ত ভারী বৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাসও রয়েছে। রবিবার রাতেই গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং লাগোয়া বঙ্গোপসাগরের উপরে গভীর নিম্নচাপের কারণে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। মৌসম ভবনের পূর্বাভাস, শক্তি বাড়িয়ে আগামী ২৪ ঘণ্টায় এই নিম্নচাপ অতি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। পরে ওই অতি গভীর নিম্নচাপ গাঙ্গেয় বাংলার উপর দিয়ে পশ্চিম দিকে বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা। এর ফলে আজ সোমবার এবং আগামী কাল মঙ্গলবার গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে জোরালো বৃষ্টি হবে। কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। তাই উপকূলবর্তী এলাকায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। মত্‍স্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে বারণ করা হচ্ছে।
কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতরের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল (পূর্বাঞ্চল) সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় এ দিন বলেন, ‘ নিম্নচাপ রূপান্তরিত হয়েছে গভীর নিম্নচাপে। সে কারণে আগামী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে। কয়েকটি জায়গায় অতিরিক্ত বৃষ্টিও হবে। ‘
সমুদ্রের তাপমাত্রার নামা-ওঠায় ঘনঘন বঙ্গোপসাগর এবং আরব সাগরে তৈরি হচ্ছে ঘূর্ণাবর্ত। এখন বঙ্গোপসাগর এবং আরব সাগরে রয়েছে তিনটি ঘূর্ণাবর্ত। একটি রয়েছে দক্ষিণ ওড়িশা উপকূলে। আর একটি রয়েছে উত্তর বঙ্গোপসাগরে। তৃতীয়টি রয়েছে আরব সাগরে, কর্নাটক উপকূলে। বঙ্গোপসাগর এবং আরব সাগরের দু’টি ঘূর্ণাবর্তের টানাপড়েনে কর্নাটক এবং ওড়িশার মধ্যে তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ অক্ষরেখা। তার জেরেই মধ্য ভারত এবং পূর্ব ভারতে মৌসুমি বায়ু আরও সক্রিয় হয়েছে।