হাসপাতালের বেডে একাদশ শ্রেণির বাৎসরিক পরীক্ষা দিল অসুস্থ ছাত্র

0
963

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ হাসপাতালের বেডে একাদশ শ্রেণীর বাৎসরিক পরীক্ষা… মেদিনীপুর সদর ব্লকের চুয়াডাঙ্গা হাইস্কুলে একাদশ শ্রেণীতে পাঠরত বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র তুফান বারিক বুধবার হাসপাতালের বেডে বসেই একাদশ শ্রেণীর বাৎসরিক পরীক্ষা দিল। বুধবার পদার্থ বিদ‍্যার পরীক্ষা ছিল। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শাষকষ্টের সমস্যা নিয়ে তুফান মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়।  বুধবার বিদ্যালয়ের শুরুতেই তুফানের মামাদাদু প্রবীর বেরা      তুফানের হাসাপাতালে ভর্তির কথা চুয়াডাঙ্গা হাইস্কুলে জানান। এবং তুফান যাতে এদিনের পরীক্ষা দিতে পারে তার আবেদন জানান।  বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তৎপর হয়ে উঠেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শুভেন্দু সিনহা উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের মেদিনীপুর আঞ্চলিক কেন্দ্রের সাথে যোগাযোগ করেন। সংসদের পরামর্শ দেন  হাসপাতালেই ছাত্রটির পরীক্ষা নেওয়ার। সেই মোতাবেক হাসপাতালে খবর দেওয়া হয়। আজকের পরীক্ষার নির্ধারিত প্রশ্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষক  রবীন্দ্র নাথ মিদ‍্যা নিয়ে পৌঁছালে  সেই প্রশ্ন খামবন্দী অবস্থায়, পরীক্ষার খাতা সহ হাসাপাতালের উদ্দেশ্য রওনা দেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক সুদীপ কুমার খাঁড়া। ইতিমধ্যেই হাসপাতালে হাজির হয়ে যান বিদ্যালয়ের অপর শিক্ষক মুস্তাক আলী। পরীক্ষা নির্ধারিত সময় ২ টায় শুরু হয়ে যায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তুফানের সুবিধার্থে ক্ষুদিরাম ব্লকের কোনার দিকে   একটি বেডের ব‍্যবস্থা করেন। সুদীপবাবু ও মুস্তাকবাবু  তত্ত্বাবধানে অক্সিজেনর পাইপ  নাকে লাগিয়ে তিন ঘণ্টা ১৫ মিনিটের পরীক্ষা শেষ করে তুফান। শেষমেশ এদিনের পরীক্ষা দিতে পেরে খুশি তুফান। সে আরও জানায় তার পরীক্ষা ভালো হয়েছে।  তুফানের দাদু প্রবীর বেরা জানান, স্কুলের শিক্ষকরা যে তৎপরতার সাথে তুফানের পরীক্ষার ব‍্যবস্থা করলেন তা তিনি চিরদিন মনে রাখবেন। পাশাপাশি তিনি ধন্যবাদ জানান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কে। ছাত্রটির পরীক্ষা সুষ্ঠ ভাবে সম্পন্ন হওয়ায় খুশি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শুভেন্দু সিনহা যেমন খুশি তেমনি খুশি সুদীপ বাবু, রবীন্দ্রনাথ বাবু, মুস্তাক বাবু সহ সমস্ত শিক্ষক শিক্ষিকারা।