দিলীপ ঘোষের ফের হুমকি শাসক দলকে, না শোধরালে সব কটাকে পালিশ করে দেব

0
1094

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ ফের প্রকাশ্যে তৃণমূলকে খুনের হুমকি দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শুক্রবার মেদিনীপুর শহরে বিজেপির সভায় দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, ‘পশ্চিম বাংলাতে যে দুর্বৃত্ত্রা ঘুরে বেড়াচ্ছে তাদের এনকাউন্টার করবো, সেটা তৃণমূলকে দেখতে হবে, ক্ষমতায় এলে আপনারা লাশ গুনবেন, আমরা গুলি গুনবো’। তিনি আরও বলেন, “দিদিমনি বলেছেন আমরা নাকি জঙ্গিপার্টি, আমরা জঙ্গি হলে তোমার সুখের কাঁথায় আগুন দিয়ে দেব। খোলা রাস্তায় বলে যাচ্ছি, কোনো ব্যাটাকে পরোয়া করিনা। সময় মতো না শুধ্রালে সবকটাকে পালিশ করবো।” একই রকম সুরে বক্তব্য রাখেন বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “পঞ্চায়েত ভোটের পর বিজেপির বহুপার্টি অফিস তৃণমুল ভেঙে দিয়েছে, উচ্চ নেতৃত্ব আমায় নির্দেশ দিলে আমিও লোকজন নিয়ে তৃণমুলের পার্টি অফিস ভেঙে দেব। শুক্রবার বিজেপির ‘মেদিনীপুর চলো কর্মসূচি ছিল। পঞ্চায়েত ভোট ও পরবর্তীকালে বিজেপি নেতা কর্মীদের উপর মারধর, মিথ্যে মামলা, ঘরবাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে জেলাশাসকের কাছে ডেপুটেশন কর্মসূচি হয়। পাশাপাশি শহরে এল আই সি মোড়ে বিজেপির পথসভা হয়। সেখানেই বক্তব্য রাখেন দিলীপ ঘোষ, জয় বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও বিজয় ব্যানার্জী, বিশ্বপ্রিয়া রায়চৌধুরি, শ্যামাপদ মণ্ডল, তাওয়ার তানমিয়া, সমিত দাস, অরূপ দাস, মহিলা নেত্রী দেবশ্রী রায় চৌধুরী প্রমুখ। শহরের চারটি প্রান্ত থেকে বিজেপির মিছিলগুলি এল আই সি মোড়ে এসে মিলিত হয়। জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কয়েক হাজার বিজেপি কর্মী সমর্থক এসে পথসভায় যোগ দেন। প্রচণ্ড রোদকে উপেক্ষা করেই কর্মী সদস্যরা নেতাদের বক্তব্য শোনেন। দিলীপবাবু যতই হুমকির সূরে বক্তব্য রাখছেন ততই মুহুর্মুহু হাততালি দিয়ে তাকে সমর্থন করছেন কর্মীরা। 

মিটিং শেষে দিলীপ ঘোশ যান কালগাং-এর বিজেপি কর্মী সুজিত ঘোষের বাড়িতে। এই সুজিত ঘোষকে পঞ্চায়েত ভোটের সময় তৃণমুলীরা মারধর করে বলে অভিযোগ। তাঁর বাড়ি ঘর লুঠপাট হয়ে যায়। সুজিত ঘোষ এখনও কোমায় রয়েছেন। তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন দিলীপবাবু ও অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্বরা।