সমর্থন প্রকল্পে টাকা না পেয়ে ক্ষুব্ধ যুবকরা জেলাশাসকের দ্বারস্থ হলেন

0
422
পত্রিকা প্রতিনিধিঃ নোটবন্দির সময় মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন যেসব বাংলার যুবক বাইরে কাজ করেন, নোটবন্দির কারণে কাজ ছেড়ে চলে আসতে হয়েছে তাদের এককালীন ৫০ হাজার টাকা করে দেবে রাজ্য সরকার। এবার সেই টাকা বিলি  নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তুললেন বেকার যুবকরা। সোমবার জেলাশাসকের অফিসে তারা ডেপুটেশনও দেন। গড়বেতা ২ নম্বর ব্লকের গোয়ালতোড়ের সেলিম মণ্ডল, মুরাদ মণ্ডল, আরিফ মহম্মদ ইকবাল খান, মিরাজ মণ্ডল সহ ৮ যুবকের দাবি তারা গুজরাট, মুম্বাইতে বিভিন্ন কোম্পানিতে কাজ করতেন। নোটবন্দির সময় কোম্পানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাঁরা রাজ্যে ফিরে আসেন। এরপর মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষনা মত ‘সমর্থন’ ফর্ম-ফিলাপ করেন। তাঁদের বক্তব্য পাঁচ মাস আগে ফর্ম ফিলাপ করেছিলাম, এলাকার তৃণমূল সমর্থক যাঁদের নামে টাকা এসেছে তারা কোনদিনও বাইরেই কাজে যায়নি। আমরা প্রকৃত প্রাপক, অথচ আমরা বাদ গেলাম। কেন এমন হল? সেলিমবাবু গড়বেতা ২ ও ৩ নম্বর ব্লকের মোট ৩৫ জন ৫০ হাজার টাকা করে পেয়েছেন, অথচ আমরা বঞ্চিত হয়েছিল। এলাকার বিডিও অফিসেও যোগাযোগ করেছিলাম। কিন্তু সেখান থেকেও কোনও সদুত্তর পাইনি। তাই জেলাশাসকের কাছে এসেছি, এখানেও কাজ না হলে সরাসরি নবান্নে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে জানাবো বলে জানান ওই সব যুবক।