প্রতি সিলিন্ডারে গ্যাস কম, এলাকাবাসীরা সরবরাহকারীকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দিল

0
974
ছবি

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ গ্যাস সরবরাহকে রতে গিয়ে সিলিন্ডারে গ্যাস কম থাকায় সরবরাহকারী কর্মীকে মারধর করে পুলিশের হাতে তুলে দিল এলাকাবাসীরা। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালের নিশ্চিন্দিপুর এলাকায়। মেদিনীপুরের ঘাটালে গ্যাস সরবরাহ ক রতে গিয়ে সিলিন্ডারে গ্যাস কম থাকায় সরবরাহকারী কর্মীকে মারধর করে পুলিশের হাতে তুলে দিল এলাকাবাসীরা। ঘাটালের নিশ্চিন্দিপুর এলাকার এলাকাবাসীদের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরেই আমরা বুঝতে পারি, ইন্ডেন গ্যাসের সিলিন্ডার প্রতি দুই-তিন কিলো করে গ্যাস কম দেওয়া হচ্ছে । আর প্রতিদিন এর মতই বৃহস্পতিবার দুপুর নাগাদ ঘাটালের নিশ্চিন্দিপুর এলাকায় গ্যাস সরবরাহকারী গাড়িতে করে বাড়িতে, বাড়িতে গ্যাস দিতে যায় ঘাটাল ইন্ডেন গ্যাস শাখার কর্মীরা। আর তখনই এলাকাবাসীদের সন্দেহ হয়, যে সিলিন্ডার পিছু গ্যাস কম আছে । তখনি এলাকাবাসী ওই কর্মীকে আটকে রেখে ওজন মেশিন এনে ওজন করলে ধরা পড়ে প্রতি সিলিন্ডার পিছু দুই – তিন কিলো করে গ্যাস কম রয়েছে। এতেই বিক্ষোভে ফেটে পড়ে গ্রাহকরা । তারা গ্যাস সরবরাহকারী কর্মীকে মারধর করে আটকে রাখে।

খবর দেওয়া হয় ঘাটাল থানায়, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় ঘাটাল থানার পুলিশ। এলাকাবাসীদের অভিযোগ মতো পুলিশ ও ওজন মেশিন এনে ওজন করতেই ধরা পড়ে সিলিন্ডারে গ্যাস কম রয়েছে, সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ গাড়ি সমেত গ্যাস সরবরাহকারী কর্মী ও গাড়িটিকে আটক করে। এ বিষয়ে ঘাটালের ইন্ডেন গ্যাস সরবরাহকারী এজেন্সির কর্মকর্তা সুকান্ত চট্টোপাধ্যায় বলেন- “এ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে আমি কিছু বলবো না। এই ধরনের গ্যাস কম হওয়ার কথা নয়।” ঘাটাল পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন মালিক বলেন, -“দীর্ঘদিন ধরেই এলাকাবাসীকে এইভাবে ঠকানো হচ্ছিল, খবরটি আমাদের কাছেও এসেছে, আজ হাতেনাতে ধরা পড়েছে। আমরা পুলিশকে বলেছি সঠিক তদন্ত করে আইনানুগ উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।”