এবার কালীপুজো, জাতীয় সড়ক অবরোধ করেও চলছে চাঁদা তোলার ধূম

0
258

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ কালীপুজো ও জগদ্ধাত্রী পুজো সামনে এসে গিয়েছে। শহর ও শহর সংলগ্ন বিভিন্ন এলাকার চাঁদা আদায়ের দাপটে নাজেহাল ছোট – বড়ো গাড়ি চালক ও গাড়ি মালিকরা। রাস্তা আটকে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। কোথাও ১০-২০-৫০ টাকার কুপন করে গাড়িতে চিটিয়ে টাকা আদায় করা হচ্ছে, কোথাও রসিদে টাকার অঙ্ক বসিয়ে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। আর টাকা না দিলেই গাড়ি আটকে রাখছে। এমনই অভিযোগ গাড়ি মালিকদের। শহরের তাঁতিগেড়িয়া, শহর সংলগ্ন খয়েরুল্লাচক, গোপগড়, ভাদুতলা, প্রভৃতি এলাকার চাঁদা আদায়ের দাপটে নাজেহাল হয়ে উঠছেন বাস, লরি, ট্যাক্সি সহ অন্যান্য চারচাকার চালকরা। ভাদুতলায় এক লরি চালক জানান ১০-১৫ কিলোমিটারের মধ্যে ৩-৪ জায়গায় চাঁদা দিতে হচ্ছে। চাঁদা না দিলে বা কম করে দিতে চাইলে গাড়ি রাস্তার পাশে দাঁড় করিয়ে রাখছে। কোথাও কোথাও পূজো উদ্যোক্তাদের সঙ্গে গাড়ি চালকদের তুমুল তর্কাতর্কি হয়। ভাদুতলায় কাছে একটি কালিপুজো কমিটির সদস্যরা হাতে বাঁশ লাঠি নিয়ে ৬০ নম্বর জাতীর সড়কে দাঁড়িয়ে থেকে চাঁদা আদায় করছে। গাড়ি মালিক ইউনিয়নের শংকর দাস জানিয়েছেন দুর্গাপুজোর সময় এতটা নাজেহাল হতে হয়নি। কালীপুজো, জগদ্ধাত্রী পুজো এগিয়ে আসতেই চাঁদা আদায়ের জুলুমবাজি বেড়েছে। গত বছরও একই অবস্থা হয়েছিল, প্রশাসনকে জানিয়েছি, কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এবারও ফোনে মৌখিক জানিয়েছি। শংকরবাবু বলেন, নির্দিষ্ট কয়েকটি এলাকায় পুলিশ দু-একবার গেলেই এই জুলুমবাজি অনেকটাই কমবে।