বাঁধভেঙে ফের বানভাসি চন্দ্রকোণা ব্লকের ৩০টি মৌজা

0
152
প্রতীক চিত্র
পত্রিকা প্রতিনিধিঃ বানভাসির শঙ্কা চেপে বসার আগেই গ্রামবাসীরা নিজেরাই ঝুড়ি কোদাল নিয়ে বেরিয়ে আসেন ভাঙা বাঁধ বাঁধতে। বেঁধেও দিয়েছিলেন প্রায়। কিন্তু শেষ রক্ষা করতে পারেননি নিমাই দাস, কান্ত দোলইরা। ক্রমেই জল বাড়তে থাকা শিলাবতীর স্রোতে ফের ভেঙে গেল সেই বাঁধ। নতুন করে প্লাবিত হল আরও ৩০ টি মৌজা। এরমধ্যে মনোহরপুর ১ নং অঞ্চলে ১৯ টি ও মনোহরপুর ২ নং অঞ্চলে ১১ টি মৌজা। হতাশ এলাকার বাসিন্দারা। এই চিত্র চন্দ্রকোনা ১ নং ব্লকের মনোহরপুর ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের খামারবেড় এলাকায় । যদিও ব্লক প্রশাসন থেকে গ্রামবাসীদের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে যত দ্রুত সম্ভব সেই ভাঙা বাঁধ মেরামতি করে দেওয়ার। চন্দ্রকোনার বিধায়ক ছায়া দোলই গ্রামবাসীদের উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, ‘ নিজেদের তাগিদে ওরা যে ভাঙা অংশ জোড়া লাগাতে সাহস করে নেমেছিল সেটাই একটা উদাহরণযোগ্য,  সেই বাঁধের ভাঙা অংশ যাতে দ্রুত মেরামতি করে দেওয়া যায় তারজন্য সেচ দপ্তর ও প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছি। প্রক্রিয়া চলছে।’ কী হয়েছিল খামারবেড়ে? কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি ও সেইসঙ্গে জলাধারের ছাড়া জলে শিলাবতী নদী বিপদসীমার উপর বইতে শুরু করে। রবিবার ভোররাতে ভেঙে যায় খামারবেড় গ্রামের এক্স জমিদারি বাঁধ। গত জুলাই মাসে এই বাঁধটি ভেঙে ভাসিয়ে ছিল মনোহরপুরের বিস্তির্ণ এলাকা। এবারও সেই আশঙ্কাই তৈরি হচ্ছিল। গ্রামের বাসিন্দা তৃণমূল নেতা তথা চন্দ্রকোনা ১ পঞ্চায়েত সমিতির ভূমি কর্মাধ্যক্ষ নিশীথ চ্যাটার্জি বলেন, ‘গ্রামে জল ঢুকতে শুরু করায় গ্রামের ৫০-৬০ জন কৃষক ঝুড়ি কোদাল নিয়ে বাঁধ বাঁধতে বেরিয়ে পড়েন। আশেপাশের এলাকার কিছু মানুষও জুটে যান। ক্ষনিকের মধ্যে জোগাড় হয়ে যায় বাঁশ, গাছের লগ, নাইলন দড়ি। আনা হয় বালির বস্তা। এইভাবে বসতবাড়ি, জমির ফসল বাঁচাতে গ্রামবাসীরা ভাঙা বাঁধ মেরামতি করে দেন যুদ্ধকালীন তৎপরতায়। কাজ প্রায় যখন শেষ পর্যায়ে তখন ফের জলের স্রোতে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে  পড়ে বাঁধ।’ হতাশ গ্রামবাসী নিমাই দাস, কান্ত দোলইরা বলেন, অনেক চেষ্টা করেও শেষরক্ষা করতে না পারায় খুব খারাপ লাগছে। সোমবারই গ্রামবাসীরা ছুটে গেছেন ব্লক অফিসে। ব্লক প্রশাসন থেকে তাঁদের দ্রুত বাঁধ সারানোর আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। এদিকে মনসাতলা চাতালে জল বাড়তে থাকায় ঘাটাল — চন্দ্রকোনা রাজ্য সড়কে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। মনসাতলা চাতালে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নৌকা চালানো হচ্ছে।