বিল্ডিংয়ে স্থানাভাব, বিদ্যালয় চত্বরে প্যান্ডেল করে বিনা আলোয় মাধ্যমিক পরীক্ষা, ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা

0
596

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ একটু ভালো করে দেখলে বোঝা যাবে এটা কোনও বিজ্ঞান মডেল প্রদর্শনী বা বসে আঁকো প্রতিযোগিতা নয়, পরীক্ষা চলছে, ছাত্রছাত্রীদের জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা অর্থাৎ মাধ্যমিক পরীক্ষা চলছে। প্যাণ্ডেল ঘেরা, যেখানে দুটি বেরোনোর দরজা ছাড়া জানলা নেই, নেই ফ্যান, লাইট, কিছুই, ঘটেছে দেবরার পাঁচগেড়িয়া হাইস্কুলে। ঐ স্কুলে এবার ডেবরা ব্লকের ৪টি বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের পরীক্ষা কেন্দ্র পড়েছিল। মোট ৫৯৬ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষা দিতে এসেছিল। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জওহরলাল বারিল বলেন, সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের নতুন বিল্ডিংয়ে স্থান দেওয়া সম্ভব হয়নি। অথচ পুরনো বিল্ডিংয়ের ছাদের চাঙর ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই ৯৭জন ছাত্রকে প্যান্ডেলে বসে পরীক্ষা দেওয়াতে ব্যাপক ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন অভিভাবকরা। তাঁদের বক্তব্য বিদ্যালয়ের পরিকাঠামো নেই সেটা আগেই শিক্ষা দফতরে জানাতে পারত। এছাড়া দুই এবং তিন তালায় যেসব ছাত্রছাত্রীদের পরীক্ষার সিট পড়েছিল তাদের বাথরুম ব্যবহার করতে হলে নীচে আসতে হচ্ছে, দুই বা তিন তলায় কোনও বাথরুম নেই। এতেও ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করেন অভিভাবকরা।। পরীক্ষা দিয়ে বেরিয়ে এসে ছাত্রদের বক্তব্য তাঁবুর গরমে একটু কষ্ট হচ্ছিল, হাওয়া ঢুকছিল না প্যান্ডেলের ভেতরে। শিক্ষা ব্যবস্থার এমন ঢিলে ঢালা ব্যবস্থার নিন্দা করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন শিক্ষামহলের একটা বড় অংশ।