ভারতী ঘোষকে ফের জেরা করল সি আই ডি দল

0
329
ফাইল চিত্র- ভারতী ঘোষ

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ সোনা পাচারকাণ্ডে সোমবার ফের ভারতী ঘোষকে জেরা করল সিআইডি। গত শুক্রবারই ভারতী ঘোষকে টানা প্রায় ৩ ঘন্টা ৫০মিনিট জেরা করেন সিআইডির অফিসাররা। সিআইডির পুলিশ সুপার ইন্দ্র চক্রবর্তীর নেতৃত্বে এই জেরা চালানো হয়। সোমবার সকালেও দাসপুরের ভারতীর ভাড়া বাড়িতে হাজির হন রাজ্য গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা। ঘণ্টা তিনেকেরও বেশি সময় ধরে ভারতী ঘোষকে জেরা করেন গোয়েন্দারা। পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার থাকাকালীন দাসপুরের এক সোনা ব্যবসায়ী অভিযোগ করেন যে, তাঁর কাছ থেকে সোনা কিনে দাম দেননি জেলার তত্‍কালীন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ। তদন্তে নামে সিআইডি। এই ঘটনার পর দীর্ঘদিন ফেরার ছিলেন ভারতী ঘোষ। তাঁর নাগাল পাননি তদন্তকারীরা। চাকরি থেকে ইস্তফা দিয়ে এখন সক্রিয় রাজনীতিতে যোগ দিয়েছেন একদা রাজ্যের দাপুটে এই মহিলা আইপিএস অফিসার। পশ্চিম মেদিনীপুরেরই ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্র থেকে ভারতী ঘোষকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তাঁকে আর গ্রেফতার করা যাবে না। তবে ভারতী ঘোষকে জেরা করতে পারবেন সিআইডি অফিসাররা।

প্রচারের সুবিধার জন্য দাসপুরের কলমিজোর এলাকার চককৃষ্ণবাটি গ্রামে একটি বাড়ি ভাড়া নিয়েছেন বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষ। সেই বাড়িই এখন তাঁর অস্থায়ী ঠিকানা। দিন কয়েক আগে সোনা পাচারকাণ্ডে ভারতীকে জেরা করতে চেয়ে তাঁর কলকাতার বাড়িতে নোটিশ পাঠায় সিআইডি। শেষপর্যন্ত ভারতী ঘোষের অনুরোধে শুক্রবার দাসপুরের ভাড়া বাড়িতে যান রাজ্য গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা।

ম্যারাথন জেরা করা হয় পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপারকে। সোমবার সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ ফের দাসপুরের ভাড়াবাড়িতে যান সিআইডি আধিকারিকরা। শুরু হয় জেরা। চলে প্রায় সাড়ে তিন ঘন্টা।