শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রণে আরও কঠোর হচ্ছে জেলা প্রশাসন

0
111
প্রতীকি ছবি- শব্দ দূষন
পত্রিকা প্রতিনিধিঃ এরপরই রাজ্যজুড়ে লাগু হয়েছে শব্দ বিধি। যদিও তা সত্যিই মেনে চলা হচ্ছে কি না সে বিষয়ে রয়েছে প্রশ্ন। পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসন কিন্তু শব্দ দানবের এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে ক্রমেই বেশ কড়া অবস্থান নিতে উদ্যোগী হয়েছে। ইতিমধ্যে জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় বিকট শব্দের ডিজের বিরুদ্ধে সচেতনতা গড়ে তুলতে প্রচার অভিযান শুরু করা করেছে প্রশাসন। পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক রশ্মি কমল জানিয়েছেন, রাজ্য সরকারের নির্দেশমতো শব্দ বিধির যে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে সেই অনুযায়ী রাত ১০টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত কোনওরকম শব্দের তাণ্ডব চালানো সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেই সঙ্গে সাইলেন্স জ়োন যেমন, হাসপাতাল, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, আদালত, ধর্মীয় স্থানের ১০০ মিটারের মধ্যে কোনও প্রকার মাইক বাজানো কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এছাড়াও বিভিন্ন এলাকার জন্য আলাদা আলাদা শব্দ বিধি চালু হয়েছে। যেমন বসবাসযোগ্য এলাকায় ৫৫ ডেসিবল, ব্যবসায়িক এলাকায় ৬৫ ডেসিবল এবং শিল্পাঞ্চল এলাকায় সর্বাধিক ৭৫ ডেসিবল শব্দে মাইক বাজানো যাবে।
নির্দেশিকায় পরিষ্কার জানানো হয়েছে, কোনও পুজো বা মেলা কমিটি এই নির্দেশিকা অমান্য করলে তাঁর বিরুদ্ধে প্রশাসন কঠোরভাবে ব্যবস্থা নেবে। তবে শুধুমাত্র নির্দেশিকা জারি করেই ক্ষান্ত থাকেনি জেলা প্রশাসন। সমস্ত থানাগুলিকে ডিজে-র বিরুদ্ধে সচেতনতা গড়ে তুলতে যথারীতি তৎপরতা শুরু হয়েছে। থানায় থানায় প্রচারের পাশাপাশি পূজো কমিটিগুলোকেও অনুমোদন দেওয়ার সময় সতর্ক করে দেওয়া হচ্ছে।