জীবন্ত মহিষাসুরমর্দিনী

0
1521

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ মহালয়ার দিন থেকেই মূলত বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজোর আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।তাই এই মহালয়ার দিনটা একটু অন‍্যভাবে কাটালেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মহিষাদলবাসী।জীবন্ত অসুর ও জীবন্ত দুর্গার খন্ডযুদ্ধে কেঁপে উঠলো সমগ্র মহিষাদল।কোনো মঞ্চ ছাড়াই নীল আকাশের খোলা মাঠে। বীরেন্দ্রকৃষ্ণের কন্ঠ বেজে উঠলো সমগ্ৰ বাঙালি জাতির কানে। মহিলষাদলের ঐতিহাসিক ব্রিজের ওপর মহালয়ার পুণ্যপ্রভাতে আট থেকে আশির ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় অনুষ্ঠিত হল জীবন্ত মহিষাসুরমর্দিনী।এদিন এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহিষাদল পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি তিলক কুমার চক্রবর্তী,মহিষাদল রাজ হাইস্কুলের প্রাক্তণ শিক্ষক তথা কবি অশোক লাটুয়া সহ অন‍্যান‍্যরা।সমগ্র অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেছিল মহিষাদল বিশ্বকলা কেন্দ্র ও মহিষাদল বুলেটস । ব্রিজের স্তম্ভে রঙ তুলির মধ‍্যদিয়ে নানা ছবিতে ভরে তুললো বিশ্বকলা কেন্দ্রের কয়েকশো কচিকাঁচারা।এছাড়াও জীবন্ত মা দুর্গা ও অশুরের ব্রিজেরমধ‍্যে  যুদ্ধ হয়। মহিষাদলে এই ধরনের অনুষ্ঠান আগে কখনো হয়নি বলে জানান মহিষাদল বিশ্বকলা কেন্দ্রের সম্পাদক বিশ্বনাথ গোস্বামী।এদিন প্রায় পাঁচ -ছয়শো মানুষ ভীড় জমিয়েছিলেন এই অনুষ্ঠান দেখতে।মহিলাদের শঙ্খধ্বনি, ঢাকবাদ‍্যির মধ‍্যদিয়ে মুখর হয়ে ওঠে মহালয়ার পূণ‍্য সকাল ।এদিন অনুষ্ঠানের মধ‍্যদিয়ে প্লাস্টিক মুক্ত ও দূশ্যদূষন মুক্ত শহর গড়ারও ডাক দেওয়া হয় ।