ভাইয়ের ঋণ অনাদায়ী, দীপক সরকারের পৈতৃক ভিটের দখল নিল পিপলস্‌ ব্যাঙ্ক

0
1226

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ ব্যাঙ্কের ঋণের টাকা পরিশোধ না করয়া পশ্চিম মেদিনীপুর সিপিএম নেতা দীপক সরকারের পৈতৃক ভিটের দখল নিল মেদিনীপুর শহরের পিপলস কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক। একই কারণে গড়বেতার ব্যাঙ্কের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, ব্যাঙ্ক থেকে লোন নেওয়ার পর তা পরিশোধ না করায় খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৪লক্ষ১৪হাজার ৬৩টাকা। জেলা সিপিএমের প্রাক্তন সম্পাদক তথা রাজ্য সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য দীপক সরকারের ভাই জয়ন্ত সরকারের বিরুদ্ধে ঋণ খেলাপির অভিযোগ এনেছে ব্যাঙ্ক। শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠক করে একথা জানান পিপলস কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান সুকুমার পড়িয়া। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ব্যাঙ্কের মুখ্য আধিকারিক মদন মোহন মন্ডল, ব্যাঙ্ক ম্যানেজার কৃষ্ণেন্দু গোস্বামী, ডাইরেক্টর সৌরভ বসু, এস এম যে আলকাদেরী, ভাইস চেয়ারম্যান সঞ্জীব সরকার সহ অন্যান্য আধিকারিকরা।

ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, ব্যাঙ্কের প্রধান সমস্যা অনাদায়ী ঋণ। এনপিএ বেশি থাকায় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ডিভিডেন্ট প্রদান বন্ধ করে দিয়েছে ২০১০ সালে। ব্যাঙ্কের বকেয়া ঋণ আদায়ে বারংবার তাগাদা দিলেও অনেকের মধ্যেই ঋণ পরিষোধের কোনও ভ্রুক্ষেপ নেই। এই পরিস্থিতিতে লোক আদালতের মাধ্যমে সমস্যা মেটানোর চেষ্টা চলছে। এরপরেও কাজ না হলে তবেই মর্টগেজ রাখা সম্পত্তি ক্রোক করা হচ্ছে। শহরের মির বাজারে অবস্থিত খেলাপি ঋণ গ্রহীতা জয়ন্ত সরকার তাঁদের পৈতৃক ভিটে মর্টগেজ রেখে ঋণ নেনে। বর্তমানে সুদ আসলে বকেয়া টাকার পরিমান দাঁড়িয়েছে প্রায় ৩৫লক্ষ টাকা।

গড়বেতার আর এক সিপিএম নেতা সুকুর আলির ছেলে হসরত আলি খাঁনের বাড়িও দখল নিতে চলেছে ব্যাঙ্ক। তাঁর ঋণ খেলাপির পরিমান প্রায় ১ কোটি । এছাড়াও ঋণ খেলাপির মধ্যে রয়েছে বেলদার অশোক সিনহা, যার বকেয়া ঋণ ১ কোটি ৫০লক্ষ টাকা। ঝাড়বনির দীপক কুন্ডু, আমলাগোড়ার রঞ্জিত মাইতি ও তালিকায় রয়েছেন।