স্বশাসিত মেদিনীপুর কলেজের প্রথম সমাবর্তনকে ঘিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে

0
2040

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ জোরকদমে চলছে স্বশাসিত মেদিনীপুর কলেজের প্রথম সমাবর্তনের প্রস্তুতি। ১৪৭ বছরের ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান ইতিমধ্যে ‘ন্যাক’-এর নজরকাড়া স্বীকৃতি পেয়ে আলোড়ন ফেলে দিয়েছে। আগামী ৩০ জানুয়ারি কলেজের প্রতিষ্ঠা দিবসে সমাবর্তণে দীক্ষান্ত ভাষণ দেবেন অধ্যাপক চিত্তব্রত পালিত। কলেজের অধ্যক্ষ গোপাল চন্দ্র বেরা এই কথা জানিয়ে বলেন, “সমাবর্তনে বিশিষ্টদের মধ্যে থাকবেন বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক রঞ্জন চক্রবর্তী। ২০১৬-র স্নাতকোত্তরদের শংসাপত্র দেওয়া হবে। স্বর্ণ ও রৌপ্যপদক দেওয়া হবে ৭৪জনকে। এছাড়া ১৮-র প্রথম তিন স্থানাধিকারীকে দেওয়া হবে বিশেষ শংসাপত্র।” ১৮৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত মেদিনীপুর কলেজ ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত ছিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন। এরপর কলেজটি আসে বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে। ২০০৪-এ ন্যাশনাল অয়াসেসমেন্ট অ্যাক্রিডিটেশন কাউন্সিল (ন্যাক) গ্রেড-ভিত্তিতে মূল্যায়ন করতে শুরু করে। কলেজের অধ্যক্ষ গোপাল চন্দ্র বেরা এই কথা জানিয়ে বলেন কলেজের ধারাবাহিক সাফল্যের ফলে ২০১৪-তে এটিকে ‘স্বশাসিত-র’ মর্যাদা দেওয়া হয়। সহায়তাপ্রাপ্ত (স্টেট এডেড) প্রতিষ্ঠানদের মধ্যে মেদিনীপুর কলেজই প্রথম এই স্বীকৃতি পায়। এখন স্নাতক স্তরে ২৪টি এবং স্নাতকোত্তর স্তরে ১৪টি (বিজ্ঞান ও কলা) বিষয়ে পড়ানো হচ্ছে। অধ্যক্ষ জানান, কলেজে এই প্রথম বিজ্ঞান ও কলা বিভাগে গবেষনা করার স্বীকৃতি দিয়েছে বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়।