মূল স্রোতে ফেরা ১০২ জন মাওবাদী প্রশিক্ষণ শেষে চাকরি পেলেন, হ’ল শপথ অনুষ্ঠান

0
1015
১০২ জন মাওবাদীদের হোমগার্ড পদে যোগদান

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ মাত্র কয়েকবছর আগেই সমগ্র জঙ্গল্মহলের এরাই ছিল ত্রাস। মাওবাদী তকমা নিয়ে এবং আইনকে সম্পুর্ণ নেজেদের হাতে নিয়ে একের পর এক সিপিএম নেতা খুন করে গিয়েছেন। ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণ, বাড়িতে অগ্নি সংযোগ, লুঠপাট করে জঙ্গলমহলে সন্ত্রাসের বাতাবরণ তৈরি করেছিলেন। রাজ্যে পালাবদলের পর জঙ্গলমহলের মাওবাদীরা একের পর এক আত্মসমর্পণ করেন। পুরস্কারও জোটে সরকারের তরফে। এককালীন টাকা পাওয়া ছাড়াও প্রত্যেকে হোমগার্ডে চাকরি পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফায় ১০২ জন আত্মসমর্পণকারী মাওবাদী চাকরি পেলেন। টানা ৪২ দিন প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর বৃহস্পতিবার হয়ে তাদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন আইজি (পশ্চিমাঞ্চল) রাজীব মিশ্র। তিনি বলেন একটা সময় এরা ভূলপথে পরিচালিত হয়ে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে যুক্ত হয়ে পড়েছিলেন। পরে মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পূনর্বাসন প্যাকেজে সাড়া দিয়ে আত্মসমর্পণ করেন। প্যাকেজ অনুযায়ী এঁরা এককালীন টাকা ও হোমগার্ডে চাকরি পেয়েছেন। এটা জঙ্গলমহলের ঐতিহাসিক ঘটনা বলে উল্লেখ করেন তিনি। আত্মসমর্পণকারী মাওবাদীদের মধ্যে সুনীল সরেন বলেন, তিনি শালবনিতে কিষেনজির নির্দেশে কাজ করতেন। অনেক খুন, বিস্ফোরণ কাণদে যুক্ত ছিলেন। এখন সমাজের মূল স্রোতে ফিরতে পেরে ভালো লাগছে। সুনীলের স্ত্রী দীপালি সরেনও এদিন শপথ গ্রহণ করেন। তিনি জানালেন ভূলবুঝে অন্যপথে চলে গিয়েছিলাম। এখন অন্যদের মতো স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারবো। খুব ভালো লাগছে। এইসব আত্মসমর্পণকারী মাওবাদীর প্রশিক্ষণ নেওয়ার সময় যাঁরা দক্ষতা দেখিয়েছেন এমন ১২জনকে পুরস্কার দেওয়া হয়। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের শেষে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত কুকুরদের কেরামতি প্রদর্শনী, লোকনৃত্য, হাস্যকৌতুক প্রভৃতি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ছিলেন সস্ত্রীক পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার আলোক রাজোরিয়া, ঝাড়গ্রামের পুলিশ সুপার অমিত কুমার ভারত রাঠোর।