গড় রক্ষায় ব্যর্থ অধীররা, কংগ্রেসকে ধরাশায়ী করে প্রথম জোড়া ফুল সবংয়ে

0
99
ফাইল চিত্র

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ সম্মান বজায় রাখতে পারলেন না অধীরবাবুরা। গত বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের বিধায়ক থাকলেও এবাই সেই সবং কেন্দ্রে কংগ্রেস চতুর্থস্থান দখল করেছেন। কংগ্রেসের ভোট ব্যাঙ্ক যে মানস ভূঁঞ্যার সঙ্গে তা নির্বাচনী ফলাফলে পরিষ্কার। মানসবিহীণ কংগ্রেস প্রার্থী ভোটে পেয়েছেন প্রায় ১৮ হাজার। এতদিন যেখানে সবংকে কংগ্রেসের গড় বলা হত, সেখানে কংগ্রেস কার্যত ধুয়ে মুখে সাফ হয়ে গিয়েছে। যদিও কংগ্রেসের গড় রক্ষা করতে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী, পরিষদীয় দলনেতা আব্দুল মান্নান নির্বাচনী প্রচারে এসে মানসবাবুকে ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলে আক্রমণ করে দলীয় কর্মীদের উদ্দীপ্ত করতে চেয়েছিলেন। সবং যে কংগ্রেসের গড় তা-ও বড় গলায় প্রচার করেছিলেন। কিন্তু মানসবিহীন কংগ্রেস কার্যত সবংয়ে অস্তিত্ব হারাতে বসেছে। এই প্রথম সবং বিধান্সভা কেন্দ্রে জিতল জোড়াফুল। উপনির্বাচনে বিরাট ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন তৃণমুল কংগ্রেস প্রার্থী গীতারানি ভূঁঞ্যা। এমন কি গত বিধানসভা ভোটে জয়ী হওয়া মানস ভূঁঞ্যার ব্যবধানকেও টপকে গিয়েছেন তাঁর স্ত্রী গীতাদেবী। গত বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সঙ্গে বামেদের জোট হয়েছিল। কংগ্রেস প্রার্থী মানসবাবু ৪৯ হাজার ভোটে জয়ী হয়েছিলেন। এবার চতুর্মুখী লড়াইয়ে তৃনমুল এককভাবে ৬৪ হাজারের বেশি ব্যবধানে জয়ী হয়েছে। রাজনৈতিক মহলের ধারনা মানস বাবু দলবদল করে কংগ্রেস থেকে তৃণমুলে যাওয়ায় সবংয়ে জোড়া ফুলের জয় হয়েছে।