জেলার সর্বত্রই বাড়ছে ডেঙ্গু রোগী, প্রতিরোধে জাঁকিয়ে শীতের দিকে তাকিয়ে স্বাস্থ্য দফতর

0
48
mosquito sucking blood from human skin
পত্রিকা প্রতিনিধিঃ রেল নগরী খড়গপুরে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বেড়ে ২০৯ জন। এতে জেলা স্বাস্থ্য দফতর উদ্বিগ্ন । এক দিকে যখন ডেঙ্গু রোগীরা সুস্থ হয়ে উঠছেন, তখন অন্যদিকে নতুন করে ডেঙ্গু রোগী ধরা পড়ছে । জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক গিরীশ চন্দ্র বেরা জানিয়েছেন , মূলত শহরাঞ্চলেই ডেঙ্গুরোগীর সংখ্যা বেশি। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন না রাখলে ডেঙ্গু রোগ বেশি হয়। তবে শীতকালে এমনিতেই জ্বরজ্বালা কমে যায়। তাই মশাবাহিত রোগ থেকে অন্যান্য রোগও কমবে। 
খড়্গপুর শহরের সুভাষপল্লী, ভবানীপুর, পাঁচবেড়িয়া, ইন্দা, নিমপুরা, খরিদা প্রভৃতি এলাকায় ডেঙ্গু রোগীড় সংখ্যা বেড়েই চলেছে। ডেঙ্গু প্রতিরোধ নিয়ে জেলা স্বাস্থ্য দফতর সচেতনতা বাড়াতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। আবার জেলাশাসক জগদীশ মিনা একাধিকবার খড়গপুরে গিয়ে পুর-কর্তৃপক্ষকে নিয়ে বৈঠক করেছিলেন । 
এদিকে মেদিনীপুর পুরসভা এবং সদর ব্লক এলাকা মিলে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা ৬২ জন। ঘাটালে আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ জন। সব মিলিয়ে সারা জেলায় ডেঙ্গু রোগীড় সংখ্যা সাড়ে পাঁচশোর কাছাকাছি। ডেঙ্গু প্রতিরোধে জেলা স্বাস্থ্য দফতর, জেলা প্রশাসন প্রচারে নেমেছিল। স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের নিয়েও সচেতনতামূলক পদযাত্রা করা হয়েছে । তা সত্বেও ডেঙ্গুরোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় প্রচার অভিযান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। গিরীশবাবু জানিয়েছেন, যতক্ষন না নিজস্ব তাগিদ নিয়ে নিজে সচেতন হবেন এবং অপরকে সচেতন করবেন, ততদিন ভুগতে হবে সকলকেই ।