৬ই জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে বিজেপির সদস্য সংগ্রহ অভিযান

0
1183

পত্রিকা প্রতিনিধিঃ আগামী ৬ই জুলাই থেকে পশ্চিম মেদিনীপুরে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিজেপির সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হবে, চলবে ১০ আগষ্ট পর্যন্ত। প্রথম দিন সদস্য সংগ্রহ অভিযানে থাকার কথা রয়েছে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। মঙ্গলবার এক সাংবাদিক সম্মেলন করে জানালেন জেলা বিজেপির সভাপতি শমিত দাস। এদিন বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতা কর্মী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন। এর মধ্যে রয়েছে সুকুমার ভূঞ্যা। সুকুমারবাবু এক সময় ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে বিজেপিতে এসেছিলেন। বিজেপি থেকে গত বিধানসভা নির্বাচনে ডেবরা থেকে প্রার্থীও হয়েছিলেন। তারপরই তিনি তৃণমূলে চলে যান। এরপর একটি সমবায় ব্যাঙ্কের আর্থিক প্রতারণা মামলায় জেল খেটেছিলেন। এখন তিনি জামিনে মুক্ত রয়েছেন। মঙ্গলবার তিনি বিজেপিতে যোগদান করেন। তাঁর হাতে দলের পতাকা তুলে দেন জেলা বিজেপি সভাপতি শমিত দাস ও সহ সভাপতি শিবু পানিগ্রাহী। এদিন নারায়ণগড়, মকরামপুর, ডেবরা, মেদিনীপুর সদর ব্লক এলাকা থেকে তিনশতাধিক ব্যাক্তি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। ব্যাঙ্কের আর্থিক তছরুপে অভিযুক্ত এক ব্যাক্তিকে দলে নিলে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হবে না কি? এই প্রশ্নের জবাবে বিজেপির জেলা সভাপতি বললেন, অভিযুক্ত মানেই দোষী নয়, তাছাড়া মমতার সরকারের আমলে অধিকাংশই মিথ্য মামলা থাকে। সুকুমারবাবু দলে ফিরতে চেয়ে আবেদন করেছিলেন। আবেদনপত্র রাজ্য বিজেপির দফতরে পাঠানো হয়েছিল, সেখান থেকে সবুজ সংকেত মিলতেই তাঁকে ফের দলে নেওয়া হচ্ছে। সুকুমারবাবু অবশ্য বলেন, তৃণমূল দলটায় গণতন্ত্র নেই, দমবন্ধ করা একটা পরিবেশ রয়েছে দলের অভ্যন্তরে। তাই সেখান থেকে বেরিয়ে এসে মোদীর ‘সবকা সাথ সবকা বিকাশে’ সমবেত হয়েছি।

এদিন নারায়নগড়, মকরামপুর, মেদিনীপুর সদর ব্লক এলাকা থেকেও অনেকে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। দলে যোগদানের সঙ্গে সঙ্গে বিজেপির সদস্য সংগ্রহের জন্য ফর্ম ফিল আপ চলছে। অনলাইনে চলছে এই ফর্ম ফিলাপ। সেই ফর্ম যাচাই করে সদস্য পদ দেওয়া হবে। ৬ই জুলাই সদস্য সংগ্রহ অভিযান আনুষ্ঠানিকভাবে এই জেলায় শুরু করবেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ৬ জুলাই থেকে ১০ আগষ্ট পর্যন্ত প্রায় একলক্ষ সদস্য সংগ্রহ হবে বলে জানান বিজেপির জেলা সভাপতি।